কলেজ হাউস

ছাত্রাবাস

হাউস ব্যবস্থাপনা : খুলনা পাবলিক কলেজ প্রকৃতিগতভাবে একটি আবাসিক প্রতিষ্ঠান। এ প্রতিষ্ঠানে ১টি ছাত্রাবাস রয়েছে। ছাত্রাবাসটিতে ছাত্ররা ঘরোয়া পরিবেশে বসবাস করে। বলে এগুলোকে হাউস বলা হয় । হাউসটিতে ১০০ জন ছাত্রের থাকার ব্যবস্থা রয়েছে । হাউসটিতে ডাইনিং হল, কমন রুম, রান্না ঘর এবং অন্যান্য সুবিধাদি বিদ্যমান। হাউসে বয়স ও শ্রেণি অনুযায়ী থাকার জন্য ব্যবস্থা করা হয়। ছাত্রদের তদারক ও পরিচর্যা করার জন্য হাউসে হাউস মাস্টার, হাউস টিউটর, স্টুয়ার্ড, কুক, টেবিল বয়, দারোয়ান, ওয়ার্ড বয়, মালী, নৈশ প্রহরী, সুইপার ইত্যাদি কর্মকর্তা ও কর্মচারী রয়েছেন। অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষগণ নিয়মিতভাবে হাউস পরিদর্শনে যান । শিক্ষকমণ্ডলী শুক্রবার ব্যতীত প্রতিদিন পূর্ব নির্ধারিত রােস্টার অনুযায়ী প্রায় ২/২.৩০ ঘণ্টা ছাত্রদের নৈশকালীন পাঠ তদারকি করেন যা অন্য যে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে এটিকে ভিন্নভাবে পরিচিত করেছে।

বিশেষ সুবিধা : মুসলিম ছাত্রদের ক্ষেত্রে ছাত্রাবাসের মসজিদে জামাতে নামাজ পড়ার ব্যাপারে বিশেষ তদারকি করা হয়। অভিজ্ঞ আবাসিক চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা সুবিধা প্রদান করা হয়। শরীরচর্চা শিক্ষকের তত্ত্বাবধানে সকাল-বিকাল শরীরচর্চা ও খেলাধুলার (Outdoor/Indoor Games) ব্যবস্থা করা হয়। এছাড়া বিভিন্ন জাতীয় দিবসে হাউসটিতে সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার আয়োজন এবং দেয়াল পত্রিকা প্রকাশের ব্যবস্থা করা হয় ।

আবাসিক ছাত্র হিসাবে যােগদানের নিয়ম ও শর্তাবলী : কোন অভিভাবক তার পুত্র বা প্রতিপাল্যকে হাউসে রাখতে চাইলে হাউসের নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হয় । হাউস কর্তৃপক্ষের সাথে আবেদনকারী অভিভাবকের সাক্ষাৎকার শেষে আবেদন মঞ্জুর হলে হাউসের জন্য নির্ধারিত নিয়ম ও শর্তাবলী মেনে চলার শর্তে উক্ত অভিভাবকের পুত্র/প্রতিপাল্যকে আবাসিক ছাত্র হিসাবে ভর্তি করা হয়। ভর্তির পর হাউস কর্তৃপক্ষ হাউসের নিয়ম-কানুন ও প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদির তালিকা অভিভাবককে সরবরাহ করেন ।

হাউসে অবস্থানের মেয়াদ : প্রতি পর্বের শুরুতে পিতা-মাতা / অভিভাবকগণ তাদের পুত্র/প্রতিপাল্যকে হাউস কর্তৃপক্ষের নিকট বুঝিয়ে দেন এবং পর্ব শেষে বুঝে নেন । প্রতি পর্বে শ্রেণি কক্ষে পাঠ শুরুর পূর্বদিনে ছাত্রদের হাউসে আসতে হয় এবং পর্ব শেষ না হওয়া পর্যন্ত হাউসে অবস্থান করতে হয়। তবে পর্বপঞ্জিতে উল্লিখিত পর্বের কোন ছুটির মেয়াদ বেশি হলে ছাত্রদের নিজগৃহে ছুটি কাটানাের অনুমতি দেওয়া হয়। হাউস। মাস্টারের পূর্বানুমতি ছাড়া কোন ছাত্রকে কলেজ চত্বরের বাহিরে যেতে দেওয়া হয় না ।

সাক্ষাৎকার : সাক্ষাৎকারের নির্ধারিত দিনে পিতা-মাতা / অনুমােদিত অভিভাবকগণ তাদের পুত্র/ প্রতিপাল্যর সঙ্গে নির্দিষ্ট সময়ে সাক্ষাৎ করতে পারেন । পর্বপঞ্জির মাধ্যমে সাক্ষাৎকারের নির্দিষ্ট দিন অভিভাবককে অবহিত করা হয়। সাক্ষাৎকারের নির্দিষ্ট দিন ও সময় ছাড়া অন্য দিন বা সময়ে কলেজে এসে পুত্র/ প্রতিপাল্যের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার সুযোগ নেই।